Site icon Marketer Rashed

রোজা ভঙ্গের কারণ সমূহ কি কি

রোজা ভঙ্গের কারণ সমূহ কি কি

রোজা ভঙ্গের কারণ সমূহ কি কি

রোজা ভঙ্গের কারণ সমূহ কি কি তা জেনে নিন এবং সে অনুযায়ী আমল করুন-

রোজা ভঙ্গের কারণ সমূহ কি কি তা যদি আমাদের জানা থাকে তাহলে আমাদের রমজানের রোজা পালন করতে খুবই সুবিধা হবে তো চলুন তাহলে জেনে নেয়া যাক

রোজা ভঙ্গের কারণ সমূহ কি কি

রোজা ভঙ্গের কারণ সমূহ দুই ভাগে বিভক্ত:

১. রোজা ভঙ্গের কিছু বিষয় রয়েছে যা শরীর থেকে কোন কিছু নির্গত হওয়ার সাথে সম্পৃক্ত-

যেমন: সহবাস, ইচ্ছাকৃতভাবে বমি করা, মহিলাদের হায়েয ও নিফাসের রক্ত বের হওয়া, শিঙ্গা লাগানো কিংবা এ জাতীয় অন্য কোন কারণে রক্ত বের করা।

২.আর কিছু রোজা ভঙ্গের বিষয় রয়েছে সেগুলো শরীরে প্রবেশ করানোর সাথে সম্পর্কযুক্ত । যেমন- খাওয়া দাওয়া বা কোনো কিছু পানাহার করা।

আল্লাহ তাআলা কোরআনে কারমে সূরা বাকারা ১৮৭ নং আয়াতে আল্লাহ তায়ালা সাওম ভঙ্গের কারণ গুলোর মূলনীতি উল্লেখ করেছেন:

“এখন তোমরা নিজ স্ত্রীদের সাথে সহবাস কর এবং আল্লাহ তোমাদের জন্য যা কিছু লিখে রেখেছেন তা (সন্তান) তালাশ কর। আর পানাহার কর যতক্ষণ না কালো সুতা থেকে ভোরের শুভ্র সুতা পরিস্কার ফুটে উঠে” [সূরা বাকারা, আয়াত: ১৮৭]

আরো পড়ুন,

রমজান মাসের ফজিলত ও গুরুত্ব

রমজান মাসের দোয়া এবং আমল সমূহ

রমজানের মাসআলা সমূহ

রমজানের পূর্ব প্রস্তুতি যেভাবে নেবেন

রমজানের সময় সূচি 2022

ইফতারের দোয়া এবং নিয়ত

রোজার নিয়ত

রোজার নিয়ত করা কি ফরজ

তাই এই সকল বিষয়ের উপর ভিত্তি করে রোজা ভঙ্গের কিছু কারণ নিচে দেয়া হলো-

  1. ইচ্ছাকৃত পানাহার করলে।
  2. স্ত্রী সহবাস করলে।
  3. ইচ্ছকৃত মুখভরে বমি করলে।
  4. কুলি করার সময় হলকের নিচে পানি চলে গেলে (অবশ্য রোজার কথা স্মরণ না থাকলে রোজা ভাঙ্গবে না)।
  5. নস্য গ্রহণ করা, নাকে বা কানে ওষধ বা তৈল প্রবেশ করালে।
  6. ইনজেকশান বা স্যালাইরনর মাধ্যমে দেমাগে ওষধ পৌছালে।
  7. রাত্রি আছে মনে করে সোবহে সাদিকের পর পানাহার করলে।
  8. মুখে পান রেখে ঘুমিয়ে পড়ে সুবহে সাদিকের পর নিদ্রা হতে জাগরিত হওয়া এ অবস্থায় শুধু কাজা ওয়াজিব হবে।
  9. কংকর পাথর বা ফলের বিচি গিলে ফেললে।
  10. সূর্যাস্ত হয়েছে মনে করে ইফতার করার পর দেখা গেল সুর্যাস্ত হয়নি।
  11. পুরা রমজান মাস রোজার নিয়ত না করলে।
  12. দাঁত হতে ছোলা পরিমান খাদ্য-দ্রব্য গিলে ফেললে।
  13. ধূমপান করা, ইচ্ছাকৃত লোবান বা আগরবাতি জ্বালায়ে ধোয়া গ্রহন করলে।
  14. মুখ ভর্তি বমি গিলে ফেললে।

মৌলিকভাবে রোজা ভঙ্গের ৭টি কারণ পাওয়া যায়

  1. স্ত্রী সহবাস করা
  2. পানাহার করা
  3. এমন কিছু যা পানাহারের স্থলাভিষিক্ত
  4. ইচ্ছাকৃতভাবে বমি করা
  5. মহিলাদের হায়েয ও নিফাসের কারণে রক্ত বের হওয়া
  6. হস্তমৈথুন করা
  7. শিঙ্গা লাগানো বা এমন জাতীয় কোন কাজ করা

রোজা ভঙ্গের কারণ বিষয়ক কিছু মাসআলা মাসায়েল এবং হাদিস

রোজার মাকরুহগুলো:

রোজা ভঙ্গের কারণ সমূহ কি কি – by Mizanur Rahman Azhari

রোজা ভঙ্গের কারণ সমূহ কি কি – by Mizanur Rahman Azhari

রোজা ভঙ্গের কারণ সমূহ কি কি – by Sheikh Ahmadullah

রোজা ভঙ্গের কারণ সমূহ কি কি – by Sheikh Ahmadullah

মেয়েদের রোজা ভঙ্গের কারণ

রোজা ভঙ্গের কারণগুলোর প্রায় সবই নারী পুরুষ সকলের জন্যই সার্বজনীন। তবে মেয়েদের জন্য বিশেষ কারণ হচ্ছে হায়েজ/নিফাজ/মাসিক/পিরিয়ড। মাসিক চলাকালীন মেয়েদের ওপর রোজা আর ফরজ থাকে না বরং নিষিদ্ধ হয়ে যায়।

এমনকি রোজা রাখা অবস্থায়ও যদি মাসিকের রক্তস্রাব শুরু হয়ে যায়, তাহলে রোজা ভেঙ্গে যায়। একইভাবে প্রসবকালীন সময়েও রোজা ভেঙ্গে যায়।

ইচ্ছাকৃত রোজা ভঙ্গের কাফফারা

রোজা মাকরুহ হওয়ার কারণ এখানে তুলে ধরা হলো-

Exit mobile version