পাসপোর্ট করতে কত টাকা লাগে
পাসপোর্ট করতে কত টাকা লাগে

পাসপোর্ট করতে কত টাকা লাগে ২০২৩ – Passport korte koto taka lage

পাসপোর্ট করতে কত টাকা লাগে ২০২৩ সালে এটা অনেকেই জানতে চান । কারন মানুষ প্রতিনিয়ত দালালের কাছে পাসপোর্ট করতে গিয়ে প্রতারিত হচ্ছে । তাই ই পাসপোর্ট করতে কত টাকা লাগে ২০২৩ এটা আপনার জানা থাকলে আপনি হয়ত প্রতারিত হবেন না ।

বর্তমানে পাসপোর্ট আমাদের জীবনের একটা অংশ হয়ে গেছে , মানে পাসপোর্ট অনেক প্রয়োজনীয় একটি জিনিস এই সময়ে।

কিন্তু ই পাসপোর্ট করতে কত টাকা লাগে ? ই পাসপোর্ট করতে কি কি লাগে ? কে করে দিবে ? এমন নানা সমস্যার সম্মুখীন হতে হয় আমাদের। যে জন্য পাসপোর্ট করাটা আমাদের জন্য অনেক বেশি কঠিন কাজ মনে হয় । এবং দালালের কাছে হয়রানির শিকার হতে হয়।

তবে পাসপোর্ট করতে কত টাকা লাগে এটা আমাদের জানা থাকলে আমরা অনেকটা Save থাকতে পারব।

তাই আপনাদের সুবিধার্থে আজকে পোস্টে ই পাসপোর্ট করতে কত টাকা লাগে 2023 ? পাসপোর্ট করতে কি কি লাগে ? ই পাসপোর্ট  হাতে পেতে কত দিন সময় লাগে? আপনাদের সকল প্রশ্নের উত্তর দেয়ার জন্যই আজকের পাসপোর্ট করতে কত টাকা লাগে পোস্ট টি।

তাই সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন এবং জানুন বাংলাদেশ সহ বিভিন্ন দেশ থেকে বাংলাদেশ ই পাসপোর্ট ফি কত এবং পাসপোর্ট ফি সংক্রান্ত বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর।

আপনি চাইলে নীচের ভিডিওটি দেখেও পাসপোর্ট করতে কতটাকা লাগে সে ব্যাপারে জেনে নিতে পারেন।

পাসপোর্ট করতে কত টাকা লাগে (ভিডিও)

Passport korte koto taka lage 2023

ই পাসপোর্ট করতে কত টাকা লাগে ২০২৩

ই পাসপোর্ট করতে সর্বনিম্ন ৪০২৫ টাকা থেকে সর্বোচ্চ ১৩,৮০০ টাকা পর্যন্ত খরচ হতে পারে।

তাছাড়া নিজে অনলাইনে আবেদন করতে না পারলে কোন অনলাইন সেবার দোকানে করালে বাড়তি কিছু টাকা খরচ হতে পারে। এই খরচ ব্যতীত পাসপোর্ট অফিসে কোন অতিরিক্ত ফি নেই। 

পাসপোর্টের পৃষ্ঠা সংখ্যা ও ডেলিভারীর ধরণ সাধারণ বা জরুরী অনুসারে ফি ভিন্ন হয়। 

মেয়াদ৫ বছর মেয়াদি৫ বছর মেয়াদি১০ বছর মেয়াদি১০ বছর মেয়াদি
৪৮ পৃষ্ঠা ৬৪ পৃষ্ঠা ৪৮ পৃষ্ঠা ৬৪ পৃষ্ঠা 
নিয়মিত ডেলিভারি৪,০২৫ টাকা৬,৩২৫ টাকা৫,৭৫০ টাকা৮,০৫০ টাকা
এক্সপ্রেস৬,৩২৫ টাকা৮,৬২৫ টাকা৮,০৫০ টাকা১০,৩৫০ টাকা
সুপার এক্সপ্রেস৮,৬২৫ টাকা১,০৭৫ টাকা১০,৩৫০ টাকা১৩,৮০০ টাকা

তো আমি আপনাদের সুবিধার্থে একটা ছকের মাধ্যমে বুঝিয়ে দিলাম ই পাসপোর্ট করতে কত টাকা লাগে। পাসপোর্ট আপনি নিজের টা নিজেই অনলাইনে নির্ভুল ভাবে করতে পারবেন । তাহলে উপরোক্ত টাকা আপনার খরচ হবে বাড়তি কোন টাকা কোথাও পে করতে হবে না ।

আর আপনি যদি নিজে না করতে পারেন দালালের কাছে জান তবে তারা বেশী টাকা নিতে পারেন। তবে আপনার যদি সঠিক জানা থাকে পাসপোর্ট করতে তাহলে ঠিক কত টাকা লাগে তাহলে আপনি হয়ত প্রতারণার হাতে পরবেন না। তাই আজকের পাসপোর্টে কত টাকা লাগে এই পোস্ট টি।

পাসপোর্ট সংশোধন করতে কত টাকা লাগে

পাসপোর্ট করা হয়ে যাওয়ার পর বিভিন্ন সময় তাতে ভুল থাকতে পারে। আবার অনেকে হয়তো সঠিকভাবে তথ্য না দেয়ার কারণেও ভুল হতে পারে। তবে যেভাবেই ভুল হোক না কেন তা সংশোধনও করা সম্ভব।

জেনে নিন কীভাবে এই পাসপোর্টের ভুল সংশোধন করবেন এবং ই পাসপোর্ট সংশোধন করতে কত টাকা লাগে।

পাসপোর্টে কোনো ধরনের তথ্য সংশোধন বা পরিবর্তন করতে চাইলে পাসপোর্টটি রি-ইস্যু জন্য আবেদন করতে হবে। 

তবে পুরোনো পাসপোর্টে বিদ্যমান নাম, বাবার নাম, মায়ের নাম এবং জন্ম তারিখ পরিবর্তনের কোনো সুযোগ নেই। বহিরাগমন ও পাসপোর্ট অধিদফতর এ সুবিধা বন্ধ করে দিয়েছে।

কেউ যদি পেশা পরিবর্তন করতে চায়, তাহলে কর্মক্ষেত্রের প্রত্যয়নপত্র দিতে হবে। আর সাথে প্রাতিষ্ঠানিক পরিচয়পত্রের ফটোকপি জমা দিতে হবে ।

কেউ যদি স্থায়ী ঠিকানা পরিবর্তন করতে চায়, এজন্য নতুন করে পুলিশ প্রতিবেদন লাগবে। বর্তমান ঠিকানা পরিবর্তন বা সংশোধনের ক্ষেত্রে এ ধরনের কোনো নিয়ম নেই।

বৈবাহিক অবস্থা পরিবর্তন করতে হলে আবেদনপত্রের সঙ্গে নিকাহনামা দিতে হবে।

এক কপি রি-ইস্যু ফরম ও এক কপি সত্যায়িত নতুন আবেদনপত্র পাসপোর্টের তথ্য সংশোধন বা পরিবর্তন করার জন্য জমা দিতে হবে।

সব কিছু ঠিকঠাক মত জমা দেয়া হলে আপনি যদি জরুরি ভিত্তিতে ৭ দিনের মধ্যে পাসপোর্ট পেতে চান তাহলে আপনাকে ৬৯০০ টাকা ফি জমা প্রদান করতে হবে।

আর যদি আপনি সাধারণ সময়ানুযায়ী মানে ২১ দিনে পাসপোর্ট পেতে চান তাহলে ৩৪৫০ টাকা ফি জমা দিতে হবে।

পাসপোর্ট করার ফি যেভাবে জমা দিবেন

সোনালী ব্যাংকের পাশাপাশি ওয়ান ব্যাংক, ট্রাস্ট ব্যাংক, ব্যাংক এশিয়া, প্রিমিয়ার ব্যাংক ও ঢাকা ব্যাংকে এই ফি জমা দেয়া যাবে।

পাসপোর্ট রেনু করতে কত টাকা লাগে

পাসপোর্ট রিনিউ করার ফি নতুন পাসপোর্টের ফি’র মতই। পাসপোর্ট রিনিউ করতে—

  • ৫ বছর মেয়াদী ৪৮ পাতার পাসপোর্ট ফি ৪,০২৫ টাকা 
  • ৬৪ পাতার পাসপোর্ট ফি ৬,৩২৫ টাকা দিতে হবে। 
  • ১০ বছর মেয়াদী ৪৮ পাতার পাসপোর্ট ফি ৫,৭৫০ টাকা 
  • ৬৪ পাতার পাসপোর্ট ফি ৮,০৫০ টাকা।

সাধারণ ডেলিভারীর ক্ষেত্রের ই পাসপোর্ট রিনিউ করতে ১৫-২০ দিন লাগতে পারে।

আজকের পোস্ট টির মাধ্যমে আপনাকে কোন উপকার করতে পেরেছি কিনা কমেন্ট করে জানাবেন। তাহলে আমার লেখা সার্থক হবে।

আর পাসপোর্ট করতে কি কি লাগে তা জানতে চাইলে নিয়মিত আমাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করুন কারন, খুব শীঘ্রই পাসপোর্ট করতে কি কি লাগে পোস্ট টি করব ইনশাআল্লাহ।

আমার লিখা অনন্য কিছু জনপ্রিয় পোস্টঃ

সকলের সুস্থতা কামনা করছি। জাযাকাল্লাহ খাইরান।

Leave a Reply

two × one =

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.